আপনি কি জানেন? সুগন্ধি সাবানই মশাদের কাছে প্রিয় করে তোলে আপনাকে!

এমন মানুষ কম পাওয়া যাবে যারা সাধ্য থাকা সত্ত্বেও সাবান ব্যবহার করে না। মানুষ পছন্দ অনুযায়ী ব্র্যান্ডের বিভিন্ন সুগন্ধি সাবান ব্যবহার করে থাকেন। এখন গবেষণা বলছে, মশারাও সুগন্ধি সাবান দ্বারা আকৃষ্ট হয়। আপনি মশাদের কাছে কতটা আকর্ষণীয় তা নির্ভর করে আপনি কোন সুগন্ধি সাবান ব্যবহার করেন তার ওপর। খবর গার্ডিয়ান।

ভার্জিনিয়া পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট অ্যান্ড স্টেট ইউনিভার্সিটির গবেষকরা বলছেন, ডাভ বা সিম্পল ট্রুথ ব্র্যান্ডের সাবান ব্যবহারকারী ব্যক্তিকে বেশি আকৃষ্ট করে মশারা। অন্যদিকে নারকেলের গন্ধ এড়িয়ে চলে মশারা। তাই সঠিক সাবান ব্যবহার করে মশাদের আক্রমণ থেকে কিছুটা এড়িয়ে যাওয়া যায়। সেই সঙ্গে ম্যালেরিয়া এবং অন্যান্য মশাবাহিত রোগ থেকে কিছুটা হলেও নিস্তার সম্ভব।

চারজন স্বেচ্ছাসেবকের ওপর এই পরীক্ষা চালানো হয়েছে। তারা একেকজন- ডায়াল, ডাভ, নেটিভ এবং সিম্পল ট্রুথ ব্র্যান্ডের সাবান ব্যবহার করেন। গবেষণার জন্য স্ত্রী এডিস মশা ব্যবহার করা হয়। উল্লেখ্য, কেবলমাত্র স্ত্রী মশাই মানুষের রক্ত পান করে থাকে।

গবেষণার প্রধান ভার্জিনিয়া টেকের ক্লেমেন্ট ভিনঅগার বলেন, আপনি এক ধরণের সুগন্ধিযুক্ত সাবান ব্যবহার করছেন, তাতে অজান্তেই আপনি মশাদের কাছে আকর্ষণীয় হয়ে উঠছেন। আবার আরেকজন অন্য সুগন্ধি সাবান ব্যবহার করছেন, অথচ তার কাছে মশারা ভিড়ছে না।

একাধিক পরীক্ষায় দেখা গেছে, ডাভ বা সিম্পল ট্রুথের সাবান ব্যবহারের পর মশার আকর্ষণ বেড়েছে, অন্যদিকে নেটিভ ব্র্যান্ডের সাবানের ক্ষেত্রে ঘটেছে উল্টোটা। এর কারণ হিসেবে ভাবা হচ্ছে নারকেলের গন্ধ।

আগেও কিছু পরীক্ষায় দেখা গেছে, নারকেল তেল মশাদের কাছে একটি প্রাকৃতিক প্রতিবন্ধক। তাই গবেষকদের মতে, সঠিক সাবান ব্যবহার করে মশার আক্রমণ থেকে কিছুটা রেহাই পাওয়া যায়। তবে মশারা কেন কিছু মানুষকে বেশি কামড়ায় আবার কিছু মানুষকে কম কামড়ায়, তার পেছনে অনেক তত্ব রয়েছে।

গবেষণাটির সহ-লেখক এবং জীববিজ্ঞানী ক্লোয়ি বলেন, প্রত্যেকের গায়ের গন্ধ আলাদা। আপনার শারীরবৃত্তীয় অবস্থা, জীবনধারা, খাদ্যাভ্যাস সবকিছুই এখানে প্রভাবক। শুধু সাবান ব্যবহারের ওপর মশার আক্রমণ নির্ভর করে না।