টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী বোলার

স্পোর্টস ডেস্ক : ক্রিকেটে টি-টোয়েন্টি হচ্ছে চার-ছক্কার খেলা। ৬টি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মোট আসর হয়েছে। এর মধ্যে অনেক বড় বড় ক্রিকেটারও বিশ্বকাপ মাতিয়ে গেছেন। ২০০৯ বিশ্বকাপে শহিদ আফ্রিদির সেই ট্রেডমার্ক উদযাপনের কথা মনে আছে? উইকেটের পর উইকেট নিয়েছেন আর দুই হাত উপরে তুলে স্ট্যাচু অব লিবার্টির মত দাঁড়িয়ে উদযাপনের পূর্ণতা পেয়েছিল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ের মধ্য দিয়ে। সেই শহিদ আফ্রিদিই বিশ্বকাপের ইতিহাসে এখনও পর্যন্ত সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী। ৩৪ ম্যাচ খেলে তিনি নিয়েছেন ৩৯টি উইকেট। এরপরই রয়েছেন লঙ্কান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক (২০১৪ সালে) লাসিথ মালিঙ্গা।

শহিদ আফ্রিদি [পাকিস্তান] সময়কাল : ২০০৭-২০১৬
ম্যাচ : ৩৪ ওভার : ১৩৫.০ রান : ৯০৭, উইকেট : ৩৯, সেরা : ৪/১১


লাসিথ মালিঙ্গা [শ্রীলঙ্ক] সময়কাল : ২০০৭-২০১৪
ম্যাচ : ৩১ ওভার : ১০২.৪ রান : ৭৬৩ উইকেট : ৩৮, সেরা : ৫/৩১


সাঈদ আজমল [পাকিস্তান] সময়কাল : ২০০৯-২০১৪
ম্যাচ : ২৩ ওভার : ৮৯.২ রান : ৬০৭, উইকেট : ৩৬, সেরা : ৪/১৯


অজন্থা মেন্ডিস [শ্রীলঙ্ক] সময়কাল : ২০০৯-২০১৪
ম্যাচ : ২১ ওভার : ৭৮.৩ রান : ৫২৬, উইকেট : ৩৫, সেরা : ৬/৮


উমর গুল [পাকিস্তান] সময়কাল : ২০০৭-২০১৪
ম্যাচ : ২৪ ওভার : ৮২.৪রান : ৬০৪, উইকেট : ৩৫, সেরা : ৫/৬


সাকিব আল হাসান [বাংলাদেশ] সময়কাল : ২০০৭-২০১৬*
ম্যাচ : ২৫ ওভার : ৮৮.১ রান : ৫৮৬,  উইকেট : ৩০, সেরা : ৪/১৫


আল আমিন হোসেন [বাংলাদেশ] সময়কাল : ২০১৪-২০১৬
ম্যাচ : ১৪ ওভার : ৪৩.৩ রান : ৩৪২, উইকেট : ১৮, সেরা : ৩/২১


আব্দুর রাজ্জাক [বাংলাদেশ] সময়কাল : ২০০৭-২০১৪
ম্যাচ : ১৫ ওভার : ৫৩.৪ রান : ৩৬৬, উইকেট : ১৬, সেরা : ২/১৬