পাতলা চুলের সমাধান আছে দারুচিনিতে

ডেস্ক: ঘন, কালো একঢাল চুলের স্বপ্ন দেখেন অনেকেই। স্বপ্ন দেখলেই তো হল না। মনের মতো চুল পেতেও চাই সঠিক যত্ন। এ দিকে চুল পড়ার সমস্যায় নাজেহল কমবেশি অনেকেই। কেউ আবার সারা বছর ধরে খুশকির সমস্যায় ভোগেন। কিন্তু নামীদামি প্রসাধনীর ব্যবহার করেও সুফল মেলে না অনেক সময়।

চুল ঝরা থেকে খুশকি— এই ধরনের সমস্যার দাওয়াই হতে পারে দারুচিনি। অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টে ভরপুর হেঁশেলের এই উপাদানটি চুলের গোড়া মজবুত করে। দারুচিনিতে উচ্চ মাত্রায় ভিটামিন কে থাকে। দারুচিনি চুলের যত্নে ব্যবহার করলে রক্ত সঞ্চালন ভাল হয়, ফলে নতুন চুল গজায়। কম বয়সে অনেকেরই চুল পেকে যায়। এই সমস্যা দূর করতে দারুচিনি দারুণ উপকারী। শরীরের যত্ন নিতেও এর উপকারিতা কম নয়।

টাইপ টু ডায়াবেটিস যাদের রয়েছে, প্রত্যেক দিন আধ চা চামচ করে দারুচিনিখাওয়ায় উপকৃত হয়েছে বলে দেখা গিয়েছে সমীক্ষায়। ট্রাইগ্লিসারাইড বা ব্যাড কোলেস্টেরলের পরিমাণ কমে দারুচিনিতে। টাইপ টু ডায়াবেটিসের মতো কোনও রোগ থাকলে শরীর ইনসুলিম হরমোনের সঙ্গে ঠিক মতো মানিয়ে নিতে পারে না। সেই কাজে সাহায্য করে দারুচিনি। কিন্তু চুল ঘন করতে কী ভাবে ব্যবহার করবেন দারুচিনি?

এক. দারুচিনি, মধু, নারকেল তেল— এই তিনটি উপকরণ একসঙ্গ মিক্সিতে ঘুরিয়ে একটি মিশ্রণ বানিয়ে নিন। মিশ্রণটি যেন ঘন হয়। এই মিশ্রণটি মাথার ত্বকে লাগিয়ে ২০ মিনিট মতো রেখে দিন। সপ্তাহে দু’বার এটি ব্যবহার করলে উপকার পাবেন।

দুই. এটি ছাড়াও দারুচিনি ব্যবহার করার আরও একটি উপায় রয়েছে। ডিম, নারকেল তেল এবং কয়েক টুকরো দারুচিনি একসঙ্গে মিশিয়ে একটি ঘন মিশ্রণ তৈরি করে নিন। শ্যাম্পু করার আগে এই মিশ্রণটি মাথার ত্বকে ভাল করে লাগিয়ে নিন। ৩০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। কয়েক দিনের ব্যবহারে চুল হবে ঘন।