হাম্মাদ তাহমীমের কবিতা ‘বিফলে গিয়েছে সব’

গুড়িয়ে দিয়েছো আল্লাহর ঘর, ভেঙে মুমিনের দিল-
তোমাদের বুকে এতোটাই বুঝি ঘৃণা করে কিলবিল?
ক্ষমতার হাত লম্বা কতোটা দেখিয়েছো বারবার
দেখিয়ে দিয়েছো তোমরা কতোটা ভয়ানক জানোয়ার।

আলেমের দাঁড়ি টেনে ছিড়ে নিলে, ডর ভয় নেই বুকে
তোমাদের মত কাফের দেখেনি মুমিনেরা ইহোলোকে।
শান্ত সুবোধ মুসল্লিদের পিটিয়ে করেছো লাশ-
জানিয়ে দিয়েছো তোমরা মূলত কোন মুনিবের দাশ।

ঢাকার মাটিতে শহীদের সারি চট্টগ্রামেও একি
তোমাদের ভয়ে হবে না ওসব কবিতায় লেখালেখি।
একাত্তোরের যুদ্ধ দেখিনি দেখিনি তো হানাদার
বলতেই পারি একুশে দেখেছি নিষ্ঠুর রাজাকার।

ক্ষমতার বলে বলিয়ান আজো অস্ত্র তাদের হাতে-
আজো পরাধীন বাংলার লোক নিজেদের বাংলাতে।
হৃদয়ের দাবী প্রকাশের দায়ে পরিণত হয় লাশে!
স্বাধীনতা তুমি দেখালে স্বরূপ এসে আজ পঞ্চাশে।

এ জাতি স্বাধীন ছিলো না কখনো বুঝিয়েছো আজ ঠিক-
একাত্তরের হায়েনারা আজো আমাদের নযদিক।
স্বাধীনতা তুমি আমাদের নও হবে না কখনো জানি
বিফলে গিয়েছে একাত্তরের শহীদের কুরবানী।