রিভিউ: সামাজিক উপন্যাস অশ্রুদের মিছিল

হিয়া জান্নাত।।

লেখক যেমন তার বইয়ের প্রচ্ছদ নিয়ে অপেক্ষায় ছিলেন ঠিক তেমনি আমিও অপেক্ষায় ছিলাম অশ্রুদের মিছিলের প্রচ্ছদ দেখার জন্য। একটি বইয়ের প্রচ্ছদ হয়তো বইয়ের ভিতরের পুরো কথাটা বুঝাতে পারে না, কিন্তু অনেকটা বুঝাতে সক্ষম হয়। আমিও দেখতে চাচ্ছিলাম কেমন রূপে সাজে অশ্রুদের মিছিল। অতঃপর প্রচ্ছদ দেখে মুগ্ধ হয়েছিলাম, একটা নারীর মন খারাপের দৃশ্য, যেন তার মুখ জুড়ে রয়েছে অশ্রুদের ভীর। তাই হয়তো সেজেছে অশ্রুদের মিছিলের বুক জুড়ে।

কাহিনী সংক্ষেপ: সুন্দর একটি গ্রাম ফুলপুর, এই ফুলপুর গ্রামকে জুড়ে রয়েছে বেশ কয়েকটি চরিত্র। বাবা হারানো ছেলে ফারহান, যার মধ্যে রয়েছে ভালোবাসা প্রকাশ না করতে পারার অসহ্য যন্ত্রণা। প্রভা মিষ্টি একটা মেয়ে, যার মনে অনেক স্বপ্ন তবুও রয়েছে কিছু দোটানা, কিসের এই দোটানা? রাফি যে ভালোবাসে প্রভাকে, পূর্ণতা পাবে কী রাফির ভালোবাসা? শফিকুল, আমজাদ, রাজু, ইকরামসহ আরও নানা চরিত্র ঘিরে রয়েছে পুরো বইটা। রয়েছে প্রতি মুহুর্তে নতুনভাবে জীবন শুরু করার পদক্ষেপ, আবার রয়েছে থমকে যাওয়া মুহুর্ত। মৃত্যু শোক খুব কঠিন, তাও যদি হয় প্রিয় মানুষের মৃত্যু তাহলে চোখের কোণের অশ্রুরা হয়তো এভাবেই মিছিল করে। সম্পূর্ণটা জানতে হলে পড়ুন অশ্রুদের মিছিল।

পাঠানুভূতি: আমাদের জীবনে কিছু মুহুর্ত আসে চাইলে আমরা আটকাতে পারি না, পারি না এগুলোকে পিছে রেখে সামনে এগিয়ে যেতে। তবুও আমাদের সামনে এগিয়ে যেতে হয়। তবুও কী চোখের পানি আমাদের পিছু ছাড়ে? উঁহু ছাড়ে না, খুশিতে হোক বা দুঃখে আমাদের অশ্রুগুলো মিছিল করে।

অশ্রুদের মিছিল একটি সামাজিক উপন্যাস, সবকিছু মিলিয়ে অনুভূতিটা বেশ ছিল। থ্রিলার ধরনের ঘটনাটা খুব ভাবিয়েছে, কখনো ভাবি নি আপন মানুষও আপন মানুষকে সামান্য কিছু টাকার জন্য এভাবে শেষ করে দিতে পারে। রাজনীতিকে ভালো কাজে লাগাতে শিখুন, ক্ষমতার লোভ কারও জীবন যেন না নেয়, কেউ যেন প্রিয়জন না হারায়।

দুটি সম্পর্ক আমাকে খুব ভাবিয়েছে, কখন কোন মোড় নিবে এটা খুঁজে চলেছি প্রতিটি পৃষ্ঠায়। যখন সুতোর গিট্টুটা খুলে স্থির ধারায় চলছিল ঘুড়ি, তখন হঠাৎ ঝড় এসে সুতোটাই কেঁটে দিল। কেন এমন হয় সত্যি আমার জানা নেই। কেন এত কষ্ট পেতে হয়? কেন অশ্রুদের মিছিল শুধু দুঃখের অশ্রু হয়ে মিছিল করল, কেন সুখের হলো না? আপন মানুষের মৃত্যু আমাকে কাঁদিয়েছে। সবকিছু মিলিয়ে আমার একটা মিশ্র অনুভূতি ছিল। বিস্তারিত জানতে হলে পড়তে হবে অশ্রুদের মিছিল।

প্রিয় চরিত্র: ফারহান এবং প্রভা। দুজনের জন্য আমার প্রচুর কষ্ট হয়।

প্রিয় কিছু লাইন – “ঝড়ে পড়া বৃষ্টি সবাই দেখলেও বালিশ ভেজানো কান্না কেউ দেখে না। কিন্তু যে কাঁদে সেই জানে এই কান্নার আছে কতটা হাহাকার। ”

” আমাদের জীবনে কিছু মানুষ আসে, যাদের শূণ্যস্থান কখনও পূরণ হবে না।”

কিন্তু আমাদের বাঁচতে হয়, প্রিয় মানুষদের জন্য বাঁচতে হয় আর “এভাবেই প্রতিদিন কান্নারা মিছিল করে সেই প্রিয় মানুষের শোকে।”

বই – অশ্রুদের মিছিল
লেখক – তানভীর তোয়াহা
ধরন – সামাজিক উপন্যাস
প্রকাশন – ঘাসফুল
মূল্য – ২২৫৳