হিমালয়-জয়ী প্রথম দৃষ্টিহীন এশিয়ান ঝাং

৪৬ বছর বয়সী চীনা নাগরিক ঝাং হং বিশ্বের সর্বোচ্চ পর্বতচূড়া জয় করলেন। এশিয়া থেকে দৃষ্টিহীন মানুষ হিসেবে তিনিই প্রথম এভারেস্টের চূড়ায় উঠলেন, আর সারা বিশ্বের নিরিখে তৃতীয়।

সিএনএন এক প্রতিবেদনে জানায়, হিমালয়ের নেপাল অংশ থেকে তিনি আরোহণ করেন।

রয়টার্সকে ঝাং বলছিলেন, আপনি শারীরিকভাবে অক্ষম বা স্বাভাবিক এটি কোনো বিষয়ই নয়। দৃষ্টিশক্তি না থাকুন বা হাত বা পা নেই— এগুলো কোনো বিষয়ই না, যদি আপনি মানসিকভাবে শক্তিশালী থাকেন।

২৪ মে ৮ হাজার ৮৪৯ মিটার উঁচু হিমালয় চূড়ায় পা রাখেন ঝাং, তার সঙ্গে ছিলেন তিনজন গাইড। তারা বেসক্যাম্পে ফিরে আসেন ২৭ মে।

চীনের দক্ষিণ-পশ্চিমের একটি শহরে ঝাং হং-এর জন্ম। ২১ বছর বয়সে গ্লকোমায় তিনি দৃষ্টিশক্তি হারান। ২০০১ সালে অন্ধ আমেরিকান পর্বতারোহী এরিক উইহেনমেয়ার এভারেস্টের চূড়ায় পা রাখেন, তিনিই ছিলেন ঝাং-এর অনুপ্রেরণা। বন্ধুকে গাইড বানিয়ে প্রশিক্ষণ নিয়ে ঝাং তার লক্ষ্য পূরণে প্রাথমিক পদক্ষেপ নেন।

করোনা পরিস্থিতিতে গত বছর হিমালয় বন্ধ রাখে নেপাল। গত এপ্রিলে আবার বিদেশিদের জন্য খুলে দেওয়া হয়।

ঝাং বলেন, এটা খুবই ভয়ের অভিজ্ঞতা। তিনি দেখতে পারছিলেন না কোথায় পা রাখছেন। ভারসাম্য রক্ষা করতে না পেরে অনেক সময় হোঁচট খেয়ে পড়েও গেছেন।